করোনায় মৃতদের ময়নাতদন্তে উঠে এল ভয়ঙ্কর তথ্য

0
243

নারায়ণগঞ্জ নিউজ.লাইভ: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিন বিশ্বজুড়ে মারা যাচ্ছে হাজার হাজার মানুষ। আমেরিকা-ইউরোপের পর বর্তমানে করোনার ‘হটস্পটে’ পরিণত হয়েছে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম জনসংখ্যার দেশ ভারত।

বিশ্বজুড়ে মানুষ প্রতিনিয়ত আক্রান্ত হলেও সুস্থ হয়ে ওঠার হার বেড়েছে। কিন্তু তারপরও প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। করোনাকে হারালেও আসলেই কি ‘সুস্থ’ হচ্ছে আক্রান্তরা। সম্প্রতি একাধিক মৃত রোগীর দেহে ময়নাতদন্তে কিন্তু উঠে আসছে এক অন্য ছবি, নয়া তথ্য।

দেখা গেছে, করোনা থেকে সম্পূর্ণ সুস্থ হলেও দেহে মারাত্মক প্রভাব পড়ছে এই রোগের। সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে মানবদেহে করোনার আশ্রয়স্থল ফুসফুস। এছাড়াও দেহের গুরুত্বপূর্ণ অংশে রক্তজমাট বাঁধার ঘটনাও চিন্তায় ফেলছে চিকিৎসকদের। মোট ১০টি মরদেহে এই ময়নাতদন্তের পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে পরীক্ষার জন্য এই সংখ্যা নিতান্তই কম। তবে এই ধরনের পরীক্ষা এটাই প্রথম।

 

লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের গবেষকরা এই পরীক্ষাটি করেন। সেখানে দেখা গেছে, করোনাভাইরাস দেহে নির্মূল হওয়ার পরও ফুসফুসে প্রদাহ কিংবা রক্তজালে ফাটল তৈরি করছে। শুধু ফুসফুস নয়, ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে কিডনিও। করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠার পরও ৯ জনের দেহে থ্রম্বোসিস (রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়া রোগ) দেখা গেছে এবং তা হৃদপিন্ড, ফুসফুস এবং কিডনির মতো গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গে।

গবেষকরা জানাচ্ছেন, এই নয়া তথ্য কোভিড চিকিৎসার ক্ষেত্রে অনেকটাই সাহায্য করবে। চিকিৎসা চলাকালীন কোন কোন ওষুধ দিলে রক্ত জমাট বাঁধাকে আটকানো যাবে তা বোঝা সম্ভব হবে। ২২ থেকে ৯৭ বছরের রোগী যারা করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে তাদের দেহে এই ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস